ঈদ কবিতা, ঈদের কবিতা, ঈদের কবিতা ছড়া, ঈদের কবিতা 2018,www.ঈদের কবিতা.com



ঈদের কবিতা ছড়া

যেমন ছিলাম, তেমন আছি। বন্ধু তোমার পাশাপাশি। ভাবছো হয়তো ভুলে গেছি, কেন ভাবছো মিছে মিছি? যদি তোমায় ভুলে জেতাম, তাহলে কি এসএমএস করে ” ঈদ মোবারক” জানাতাম ? “EID MUBARAK”


… 人 .. ( ◎ ) ..║ ∩║_____ 人 ..║ ∩║__ .-:”'”””;-. ..║ ∩║ (*(*(*|*)*)*) ..║ ∩║∩∩∩∩∩∩║ . পবিত্র ঈদ মোবারাক 

ঈদের কবিতা ছড়া
শপ্ন গুলো সত্যি হোক, সকল আশা পুরনো হোক। দু:খ দুরে যাক, সুখে জীবন ভরে যাক। জীবনটা হোক ধন্য, ঈদ মোবারাক তোমার জন্য। *ঈদ মোবারাক*
নীল আকাশে ঈদ-এর চাঁদ, ঈদের আগে চাঁদনী রাত। ঈদ হল খুশির দিন, দাওয়াত রইলো ঈদের দিন। ভালো থেকো সীমাহীন, ঈদ-এর দিন টা তোমার হোক রঙিন..*ঈদ মুবারক*

ঈদের কবিতা
রিমঝিম এই বৃষ্টিতে, ঈদ কাটাবো সৃষ্টিতে. খুশির হাওয়া লাগলো মনে, নাচবে খুকি ক্ষণে ক্ষণে সাজবে সবাই নতুন পোশাক, ঈদ যেন সারা জীবন রয়ে যাক “ঈদ মোবারক“!

ঈদ কবিতা
রঙ লেগেছে মনে। মধুর এই খনে। তোমায় আমি রাঙ্গিয়ে দিবো ঈদের এই দিনে। “ঈদ মোবারাক“!


ফুল সুবাস দেয়, দৃষ্টি মন চুরি করে, খুশি আমাদের হাসায়, দুঃখ আমাদের কাদায়, আর আমার এই এসএমএস তোমাকে ঈদের শুভেচ্ছা জানায়। “ঈদ মোবারাক“

www.ঈদের কবিতা.com
রং লেগেছে মনে, মধুর এই ক্ষণে, তোমায় আমি রাঙিয়ে দিব ঈদের এই দিনে। “ঈদ মুবারক“।

 
চেয়ে দেখো! নীল আকাশে, চাঁদ উঠেছে! ঈদ-এর চাঁদ, খুশির বার্তা নিয়ে এসেছে। সেই খুশিতে মোদের বাড়ি দাওয়াত দিলাম আসতে। আসবে কিন্তু, নয় রাগ করব তোমার সাথে।
দুরের মানুষ আসুক কাছে, কাছের জনও থাকুক পাশে, মন ছুটে যাক মনের টানে, নয়া চাঁদের আগমনে, ঈদ কাটুক খুশিতে। ***ঈদ মুবারক*** 


ঈদের দাওয়াত তোমার তরে, আসবে তুমি আমার ঘরে। কবুল করো আমার দাওয়াত, না করলে পাবো আঘাত। তখন কিন্তু দেবো আড়ি, যাবো না আর তোমার বাড়ি।
১দিন রোজা বলল হেসে, বিদায় আমর খুব কাছে. কষ্ট দিয়েছি অনেক দিন কিভাবে দিব সেই ঋণ? তাই ঈদের দিন দিলাম তোমায়, খুশি হও তোমরা সবাই... (ঈদ মুবারক)। 


সোনালী সকাল, রোদেলা দুপুর, পড়ন্ত বিকেল, গোধূলি সন্ধ্যা, চাঁদনী রাত,সব রং-রাঙ্গিয়া থাক আপনার সারাটা বছর, সারাটা জীবন। এই কামনায়- “ঈদ মুবারক“


সেনাবাহিনীতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৮ Army job circular 2018

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আমি আজকে নিয়ে আসলাম সেনাবাহিনীর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ।

এখানে আমি আপলোড দিয়েছি সেনাবাহিনীর নতুন একটি সার্কুলার ,অনেকেই দেখে যে সেনাবাহিনী চাকরি খুঁজতে খুঁজতে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে যায় কিন্তু আসল চাকরির সার্কুলার পাননা ।


আজকে নিয়ে আসছি 2018 সালের army job circular


আবেদনের শুরুর তারিখ ১লা জুন 2018

 এবং আবেদনের শেষ তারিখ 30 জুন 2018


সার্কুলার ছবি দেওয়া হল যাদের লাগবে তারা ডাউনলোড করে নিবেন

সেনাবাহিনীতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৮ 2018




আর যাদের পড়তে বা বুঝতে অসুবিধা হয় ভালোভাবে বুঝতে চাইলে নিচে ইউটুব ভিডিও দেওয়া আছে সেখান থেকে বিস্তারিত circular টি দেখে নিন


 tags:- 
সেনাবাহিনী নিয়োগ 2018 ব্যাচ
সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
www.বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি.com
সেনাবাহিনীতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2018
সেনাবাহিনীতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৮
সেনাবাহিনীর সার্কুলার ২০১৮
army job circular in bangladesh
bangladesh sainik job circular

jsc new mark distribution 2018 জেএস সি জেডেসি নতুন মানবন্টন ২০০ নাম্বার কমে গেল

jsc mark distribution 2018


জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার মানবন্টন যেখানে 1050 নাম্বার ছিল সেখান থেকে 850 নম্বর করা হয়েছে নিচে বিস্তারিত দেয়া হলো:


বর্তমানে, জেএসসি পরীক্ষার 850-চিহ্ন পরীক্ষার জন্য একটি ঐচ্ছিক বিষয়সহ 650-চিহ্ন পরীক্ষার জন্য বসবে, তবে জেডিসি পরীক্ষার 850-মার্ক পরীক্ষার জন্য বসবে, যা 1050 ছিল।

সংশোধিত মার্ক ডিস্ট্রিবিউশন অনুযায়ী, প্রত্যেকটি কাগজের জন্য 100 নম্বরের 50 নম্বরের প্রথম এবং দ্বিতীয় পাঠ্যক্রম পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। অনুরূপ চিহ্ন বন্টন অনুসরণ করা হবে ইংরেজি প্রথম এবং দ্বিতীয় পত্র।

অনুরূপ পরিবর্তনগুলিও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট পরীক্ষার জন্য প্রস্তাবিত।

"২019 সালের মধ্যে নতুন বই প্রকাশিত হবে এমন কিছু ক্ষেত্রে সিলেবাস এবং পাঠ্যক্রমের আকার কমিয়ে আনা হবে।" শিক্ষার্থীদের চাপ কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, "সোহরাব আরও বলেন ।

তবে, শিক্ষাবিদদের পরামর্শ দেওয়া হবে যাতে শিক্ষার্থীদের শেখার ফলাফলের উপর কোন প্রভাব না থাকে।

জিজ্ঞাসা করা হয়েছে যে এই বছরের পরীক্ষায় একাধিক পছন্দের প্রশ্ন (এমকিউইউ) বাদ দেওয়া হবে কিনা, শিক্ষা সচিব বলেন, এমসিএকির টাইপ প্রশ্ন এই বছরের পরীক্ষায় থাকবে কিন্তু তারা কিছু অন্যান্য বিকল্পের উপরও মনোযোগ দিচ্ছে।

jsc mark distribution 2018, jsc jdc new mark distribution 2018 educational all bord ,জেসিসি মার্ক ডিস্ট্রিবিউশন 2018, জেএসি নতুন মানবন্টন ২০১৮,শিক্ষা  বোর্ড

ঈদ মোবারক লেখা ছবি


 যেদিন দেখব ঈদের চাঁদ, খুশি মনে কাটবে রাত। নতুন সাজে সাজব আজ, আজ হলো ঈদের দিন আনন্দে কাটবে সারাদিন। ঈদ বোবারক 



 চাঁদ উঠেছে ফুল ফুটেছে দেখবি কে কে আয়, নতুন চাঁদের আলো এসে পড়ল সবার গায় । ঈদ মোবারাক 





 রিমঝিম এই বৃষ্টিতে ঈদ কাটাবো সৃষ্টিতে |খুশির হাওয়া লাগলো মনে,নাচবে খুকি ক্ষণে ক্ষণে | সাজবে সবায় নতুন পোশাক,ঈদ যেন সারা জীবন রয়ে যাক |"ঈদ মোবারক"


আজ খুশির বাধ বেঙেছে ।উঠছে ঈদের চাদ ।গুম নাইরে গুম নাইরে আজ সারা রাত ।গাছে গাছে নতুন কলি ফুটবে এবার ফুল। সবার জন্য রইল আমার ঈদের আমন্তন ।ঈদ মোবারক



 শুভ রজনী, শুভ দিন, রাত পরোলেই ঈদের দিন। উপভোগ করবে সারাদিন, ঈদ পাবে না প্রতিদিন। দাওয়াত রইলো ঈদের দিন। “ঈদ মোবারক”




 ঈদ" মানে খুশী' গরুর গলায় রশী' শীতের শর্দি কাসি' আবার হুজুরের মুখে হাসি' তবুও ঈদ" ভালোবাসি' তাই সবাইকে ঈদমোবারক জানিয়ে এবার আমি আসি!


 ঈদ" মানে খুশী' গরুর গলায় রশী' শীতের শর্দি কাসি' আবার হুজুরের মুখে হাসি' তবুও ঈদ" ভালোবাসি' তাই সবাইকে ঈদমোবারক জানিয়ে এবার আমি আসি!


"ঈদের দাওয়াত তোর তরে, আসবি তুই আমার ঘরে। কবুল কর আমার দাওয়াত, না করলে পাবো আঘাত। তখন কিন্তু দেবো আড়ি, যাবো না আর তোর বাড়ি। ঈদ মোবারক" 





 tags:- ঈদ মোবারক ছবি
ঈদ মোবারক ছবি ডাউনলোড
ঈদ মোবারক ছবি hd
ঈদ মোবারক ছবি নতুন
ঈদ মোবারক ছবি বাংলা
ঈদ মোবারক অগ্রিম ছবি
আগাম ঈদ মোবারক ছবি
অগ্রিম ঈদ মোবারক এর ছবি
ঈদ মোবারক কার্ড ছবি
ঈদ মোবারক লেখা ছবি
ঈদ মোবারক শুভেচ্ছা ছবি
ঈদ মোবারক সুন্দর ছবি

ঈদ মোবারক কার্ড

ঈদ মোবারক  কার্ড







































জমি মাপার পদ্ধতি || জমি মাপার সুত্র || জমি মাপার নিয়ম || জমি পরিমাপ জোক || খতিয়ান ও দাগের তথ্য

জমি মাপার পদ্ধতি ,দুই বিঘা জমি
জমি মাপার সুত্র ,জমি মাপার নিয়ম ,জমি পরিমাপ
জোক, খতিয়ান ও দাগের তথ্য ,জমি সংক্রান্ত আইন,ভূমি জরিপ,jomir map,জমির রেকর্ড




কাঠা, বিঘা ও ছটাক মাপ
বিঘা-কাঠার হিসাব

১ বিঘা = (৮০ হাত×৮০ হাত) ৬৪০০ বর্গহাত

১ বিঘা = ২০ কাঠা

১ কাঠা = ১৬ ছটাক

১ ছটাক = ২০ গন্ডা

১ বিঘা = ৩৩,০০০ বর্গলিঙ্ক

১ বিঘা = ১৪,৪০০ বর্গফুট

১ কাঠা = ৭২০ বর্গফুট

১ ছটাক = ৪৫ বর্গফুট



ছটাক

১৬ ছটাক = ১/ কাটা

০.০১৬৫ অযুতাংশ = ১/কাঠা

০.৩৩ শতাংশ বা ০.৩৩০০ অযুতাংশ = ১ বিঘা

২০ (বিশ) কাঠা = ১ বিঘা

৩ বিঘা = ১.০০ একর।


================================

টিকাঃ একশত শতাংশ বা এক হাজার সহস্রাংশ বা দশ হাজার অযুতাংশ= ১.০০ (এক) একর। দশমিক বিন্দুর (.) পরে চাষ অঙ্ক হলে অযুতাংশ পড়তে হবে।


মৌজা ভিত্তিক ভূমির নকশা ও ভূমির মালিকানা সম্পর্কিত খতিয়ান বা ভূমি রেকর্ড প্রস্তুত কার্যক্রমকে ভূমি জরিপ বলা হয়। জরিপের মাধ্যমে নতুন মৌজা নকশা ও রেকর্ড তৈরী করা হয় ও পূর্বে প্রস্তুতকৃত নকশা ও রেকর্ড সংশোধন করেও ভূমির শ্রেণীর পরিবর্তনের সাথে মিল রেখে এবং মালিকানার পরিবর্তনের ধারাবাহিবতার সাথে সামাঞ্জস্যপূর্ণ কওর হালকরন করা হয়। এ যাবত কাল পর্যন্ত চার বার রেকর্ড কার্যক্রম চালান হয় এ দেশে।রেকর্ড গুলো হল:-1 C S -Cadastral survey2 R S -Revitionel survey3 P S – Pakistan survey4 B S- Bangladesh survey
ক) সি.এস. জরিপ (Cadastral Survey)

বঙ্গীয় প্রজাতন্ত্র আইনের দশম অধ্যায়ের বিধান মতে দেশের সম জমির বিস্তারিত নকশা প্রস্তুত করার এবং প্রত্যেক মালিকের জন্য দাগ নম্বর উল্লেখপুর্বক খতিয়ান প্রস্তুত করার বিধান করা হয়।



খ) এস.এ. জরিপ (State Acquisition Survey)



১৯৫০ সালে জমিদারী অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইন পাশ হওয়ার পর সরকার ১৯৫৬ সালে সমগ্র পূর্ববঙ্গ প্রদেশে জমিদারী অধিপ্রহনের সিদ্ধান্ত নেয় এরং রায়েতের সাথে সরকারের সরাসরি সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে জমিদারদেও প্রদেয় ক্ষতিপুরণ নির্ধারন এবং রায়তের খাজনা নির্ধারনের জন্য এই জরিপ ছিল। জরুরী তাগিদে জমিদারগন হইতে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে এই জরিপ বা খাতিয়ান প্রণয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছিল।



গ) আর.এস. জরিপ ( Revisional Survey)



সি. এস. জরিপ সম্পন্ন হওয়ার সুদীর্ঘ ৫০ বছর পর এই জরিপ পরিচালিত হয়। জমি, মলিক এবং দখলদার ইত্যাদি হালনাগাদ করার নিমিত্তে এ জরিপ সম্পন্ন করা হয়। পূর্বেও ভুল ত্রুপি সংশোধনক্রমে আ. এস জরিপ এতই শুদ্ধ হয় যে এখনো জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের ক্ষেত্রে আর, এস জরিপের উপর নির্ভর করা হয়। এর খতিয়ান ও ম্যাপের উপর মানুষ এখনো অবিচল আস্থা পোষন করে।



ঘ) সিটি জরিপ (City Survey)



সিটি জড়িপ এর আর এক নাম ঢাকা মহানগর জড়িপ। আর.এস. জড়িপ এর পর বাংলাদেশ সরকার কর্তিক অনুমতি ক্রমে এ জড়িপ ১৯৯৯ থেকে ২০০০ সালের মধ্যে সম্পন্য করা হয়। এ জাবত কালে সর্ব শেষ ও আধুনিক জড়িপ এটি। এ জড়িপ এর পরচা কম্পিউটার প্রিন্ট এ পকাশিত হয়।

==========================


খতিয়ান কি?
খতিয়ান কি?
সি এস খতিয়ান কি?
এস এ খতিয়ান কি?
আর এস খতিয়ান কি?
বি এস খতিয়ান কি?

=খতিয়ানঃ

মৌজা ভিত্তিক এক বা একাদিক ভূমি মালিকের ভূ-সম্পত্তির বিবরণ সহ যে ভূমি রেকর্ড জরিপকালে প্রস্ত্তত করা হয় তাকে
খতিয়ান বলে। এতে ভূমধ্যাধিকারীর নাম ও প্রজার নাম, জমির দাগ নং, পরিমাণ, প্রকৃতি,
খাজনার হার ইত্যাদি লিপিবদ্ধ থাকে।
আমাদের দেশে বিভিন্ন ধরনের খতিয়ানের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। তন্মধ্যে
সিএস, এসএ এবং আরএস উল্লেখযোগ্য।

=সি এস খতিয়ানঃ

১৯১০-২০ সনের মধ্যে সরকারি আমিনগণ প্রতিটি ভূমিখণ্ড পরিমাপ করে উহার আয়তন, অবস্থান ও ব্যবহারের প্রকৃতি নির্দেশক মৌজা নকশা এবং প্রতিটি ভূমিখন্ডের মালিক দখলকারের বিররণ সংবলিত যে খতিয়ান তৈরি করেন সিএস খতিয়ান নামে পরিচিত।

=এস এ খতিয়ানঃ

১৯৫০ সালের জমিদারি অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইন পাসের পর সরকার জমিদারি অধিগ্রহণ করেন। তৎপর সরকারি জরিপ কর্মচারীরা সরেজমিনে মাঠে না গিয়ে সিএস খতিয়ান সংশোধন করে যে খতিয়ান প্রস্তুত করেন তা এসএ খতিয়ান নামে পরিচিত। কোনো অঞ্চলে এ খতিয়ান আর এস খতিয়ান নামেও পরিচিত। বাংলা ১৩৬২ সালে এই খতিয়ান প্রস্তুত হয় বলে বেশির ভাগ মানুষের কাছে এসএ খতিয়ান ৬২র
খতিয়ান নামেও পরিচিত।

আর এস খতিয়ানঃ

একবার জরিপ হওয়ার পর তাতে উল্লেখিত ভুলত্রুটি সংশোধনের জন্য
পরবর্তীতে যে জরিপ করা হয় তা আরএস খতিয়ান নামে পরিচিত। দেখা যায় যে, এসএ জরিপের আলোকে প্রস্তুতকৃত খতিয়ান প্রস্তুতের সময় জরিপ কর্মচারীরা সরেজমিনে তদন্ত করেনি। তাতে অনেক ত্রুটি-বিচ্যুতি রয়ে গেছে। ওই ত্রুটি-বিচ্যুতি দূর করার জন্য সরকার দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরেজমিনে ভূমি মাপ-ঝোঁক করে পুনরায় খতিয়ান প্রস্তুত করার উদ্যোগ নিয়েছেন। এই খতিয়ান আরএস খতিয়ান নামে পরিচিত। সারাদেশে এখন পর্যন্ত তা সমাপ্ত না হলেও অনেক জেলাতেই আরএস খতিয়ান চূড়ান্তভাবে প্রকাশিত হয়েছে।
সরকারি আমিনরা মাঠে গিয়ে সরেজমিনে জমি
মাপামাপি করে এই খতিয়ান প্রস্তুত করেন বলে তাতে ভুলত্রুটি কম লক্ষ্য করা যায়।
বাংলাদেশের অনেক এলাকায় এই খতিয়ান বি এস খতিয়ান নামেও পরিচিত।

=বি এস খতিয়ানঃ

সর্ব শেষ এই জরিপ ১৯৯০ সা পরিচালিত হয়। ঢাকা অঞ্চলে মহানগর জরিপ হিসাবেও পরিচিত।









রবি ২ জিবি ২০ টাকা Robi 2 Gb Internet 20 Tk

আসসালাম আলাইকুম ,কেমন আছেন আপনারা আশা করি ভালই আছেন ।

 আজকে নিয়ে আসছি  রবির নতুন অফার,

 রবি দিচ্ছে মাত্র 20 টাকায় 2 জিবি ইন্টারনেট সীমিত সময়ের জন্য  ।

তাই আজ এই লুফেনিন অফারটি robi  20 Gb internet 20 tk.


robi 2 gb 20 tk



অফারটি নিতে হলে আপনাকে কী কী করতেবে দেখে নিন


1.  অফারটি সকল robi prepaid and pospaid customer নিতে পারবেন।

 ২ , অফারটি নিতে আপনার মোবাইলে 20 টাকা হলেই  চলবে


৩, অফাীটির মেয়াদ  24 ঘন্টা


৪ , দিনে একবার করে নিতে পারবেন আফারটি



৫.অফারটি নিতে ডায়েল করুন*১২৩*০২২#


৬.  এমবি চেক করতে ডায়াল করুন *৮৪৪৪*৮৮#


tags:- robi 2 gb 20 tk , robi 20 tk 2 gb Internet,  robi 2000 mb 20 taka  ,robi 2 gb offer ,robi 2gb 20 tk code , 2gb 20 tk check code , new offer , jun , july ,aguest ,sep 2018 ,রবি এমবি অফার , রবি ২ জিবি ২০ টাকা , ২০ টাকা ২ জিবি , অফার ২০১৮ ,

ফিতরা 2018, ফিতরা অর্থ কি,ফিতরা আদায়ের নিয়ম,ফিতরা কাকে দেওয়া যাবে


আসসালামুআলাইকুম আপনারা কেমন আছেন আশা করি ভাল আছেন । আজকে যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব তা হচ্ছে, 


ফিতরা 2018 কত টাকা, এবং কাকে দেয়া যাবে দেওয়ার নিয়ম,  সেটা সম্বন্ধে অনেকে জানতে চায় তো আমি তা নিয়ে লিখতে  বসছি





ফিতরা অর্থ কি:   সকালের খাদ্যদ্রব্য বোঝানো হয়


ফিতরা কাকে দেওয়া যাবে :

গরীব, দুঃস্থ, অসহায়, অভাবগ্রস্থ ব্যক্তিকে ব্যক্তিকে ফিতরা প্রদান করা যাবে।


ফিতরা দেওয়ার নিয়ম
রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম প্রত্যেক স্বাধীন-ক্রতদাস, নারী-পুরুষ, ছোট-বড় মুসলমানের যাকাতুল ফিতর ফরজ করেছেন এক ‘সা’ পরিমাণ খেজুর বা যব ফরজ করেছেন। তিনি লোকদের ঈদের নামাযে বের হওয়ার পূর্বেই তা আদায় করার আদেশ দিয়েছেন।


এ বছরের ফিতরা :   ২০১৮ সালের ফিতরা জনপ্রতি সর্বনিম্ন ৭০  টাকা এবং সর্বচ্চ ২৩১০ টাকা 
নিরধারন করেছে ইসলামিক ফাউনডেশন ।

 tags:- ফিতরা 2018,ফিতরা pdf, ফিতরা অর্থ কি,ফিতরা আদায়ের নিয়ম,ফিতরা কাকে দেওয়া যাবে
ফিতরা দেওয়ার নিয়ম ২০১৮ , ইসলামিক ফাউনডেশন  islamic foundation









ঈদ জোকস, মজার sms




১ম বন্ধু :আহারে দোস্ত, তোর বউটাকে দেখে খুব কষ্ট হচ্ছিল রে। এমনভাবে কাশছিল যে রাস্তার সব লোক ঘুরে ঘুরে তাকাচ্ছিল।


২য় বন্ধু :আরে গাধা, এবারের ঈদের শাড়িটা সবাইকে দেখাতে হবে না?


l স্বামী :বেতন-বোনাস পুরোটাই তো তোমার হাতে তুলে দিলাম। এবার আমাকে কী সারপ্রাইজ দেবে গো?



স্ত্রী :এবার সবার আগে তোমার ঈদের ড্রেস রেডি। গতবার ঈদে যে পাঞ্জাবিটা কিনে দিয়েছিলাম, ওটা লন্ড্রি থেকে ধুয়ে ইস্ত্রি করে তুলে রেখেছি তো।

ঈদ রঙ্গ



স্বামী :ঈদ উপলক্ষে ১ বস্তা মুড়ি আনব মানে?


স্ত্রী :বিভিন্ন চ্যানেলে ৭ দিনব্যাপী বিশেষ ঈদ আয়োজন। এই সময়ে টিভি দেখার ফাঁকে আত্মীয়-স্বজনের রান্নার সুযোগ কই। মুড়ি থাকলে কেল্লা ফতেহ।


 টাগস:- ঈদ জোকস, ঈদের জোকস, ঈদের মজার গল্প, funny jokes ,নতুন জোকস, নতুন জোকস, মজার জোকস ফানি, কৌতুক sms 

robi 100 sms 5 tk

AssalamuAlikum friends how are you, I have u are  good



Today I will post how you can buy 100 sms in Robi with five Tk  and you can use the 100 sms  for two days.



Please dial 100 sms for Robi 5 taka. * 8666 * 5555 #



The validity can be used for two days.



tags:- robi 100 sms code, robi 100 sms 5tk
robi 100 sms check code,kinar coderobi 5 tk 100 sms,1 tk 100 sms in robi,robi 2 tk 100 sms
robi 5 takai 100 sms,robi 100 sms pack,robi 100 sms bundle offer,sms package,  buy code